দেখে নিন ডাবের জল কি কি রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 1
    Share

ডাবের জল হলো কচি ডাবের ভেতরের এক প্রকার তরল পদার্থ বা রস। ক্রান্তীয় অঞ্চলের অধিবাসিদের কাছে ডাবের জল অত্যন্ত জনপ্রিয়।

দেখে নিন ডাবের জল কি কি রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে
ডাবের জল হলো কচি ডাবের ভেতরকার রস। ডাব পেকে নারিকেল হবার সাথে সাথে ডাবের জল কমে যায়, আর তার জায়গায় নারিকেলের শাঁস ভেতরে জমা হয়। একেবারে কচি ডাবের ভিতরে অল্প পরিমাণে শাঁস থাকে।

ডাবের জলে প্রতি ১০০ গ্রামে ১৬.৭ ক্যালোরি তথা ৭০ কিলো জুল খাদ্য শক্তি রয়েছে। ডাবের জলে বিভিন্ন ধরনের উপাদান রয়েছে। প্রায় ৯৫.৫ % জল, ক্যালিশিয়াম ০.৬৯%, ফসফরাস অ্যাসিড রয়েছে ০.৫৬%, পটাশিয়াম রয়েছে ০.২৫%। লৌহ রয়েছে প্রায় ০.৫ গ্রাম(প্রতি ১০০ গ্রামে) এবং চিনি প্রায় ০.৮০ গ্রাম। ডাবের জল বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে রোগের প্রতিরোধক ও প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করে। যেমন ধরুন কিডনির পাথর সৃষ্টি রোধ করে এবং আলসার, ডায়রিয়া,গ্যাসটাটাইটিস বা অ্যাসিডিটি, মূত্রনালীর সংক্রমণ ও ইউরোলিথিয়েসিস প্রতিরোধ ইত্যাদি। তবে বিশেষ ছয়টি রোগ প্রতিরোধের ক্ষেত্রে ডাবের জলের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। এই বিষয়ে আজকে আমাদের ব্লগে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন শ্রাবস্তী গুহ (বেহালা, কোলকাতা) দেখে নেওয়া যাক ডাবের জল কি কি রোগের ওষুধ হিসেবে কাজ করে-

১. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে-

রিবোফ্লেবিন, নিয়াসিন, এবং পেরিডক্সিন সমৃদ্ধ ডাবের জল দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে বা উন্নত করতে সাহায্য করে থাকে। এছাড়া ডাবের জল খাবার হজমে সহায়তা করে। এমনকি ডাবের জল অ্যান্টিভাইরাল ও অ্যান্টিব্যকটেরিয়াল উপাদান বিভিন্ন ধরনের ভাইরাসের আক্রমণ থেকেও দেহকে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

২. উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা নিয়ন্ত্রনে সাহায্য করে-

আমরা জানি ডাবের জল হল প্রাকৃতিক খনিজে সমৃদ্ধ যেটি শরীরের রক্ত সঞ্চালন কে স্বাভাবিক রাখে এবং তার সাথে সাথে সাথে শরীরের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা কেও নিয়ন্ত্রণ করে। ফল স্বরূপ হৃদরোগের ঝুঁকি কমে আসে এবং এর পাশাপাশি অন্যান্য কার্ডিওভ্যসকুলার রোগের সম্ভাবনা কমে।

৩. কিডনির সমস্যা থেকে চিন্তা মুক্ত রাখে

ডাবের জলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম। এই খনিজ বা মিনারেল সমূহ কিডনির বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধে সহায়তা করে এবং ডাবের জল ইউরিনের সমস্যা থেকে চিন্তা মুক্ত রাখে।

[[সর্বাধিক নোবেল জয়ী পৃথিবীর মধ্যে প্রথম দশটি দেশ]]

৪. ওজন কমাতে সহায়তা করে

ওজন কমানোর জন্য আপনারা অনেকেই ডায়েটিং করেন। যদি তাই করে থাকেন তাহলে আপনার নিত্য দিনের আহারের সঙ্গী হতে পারে ডাবের জল। অন্যান্য যেকোনো চিনি যুক্ত ফলের জুসের চাইতে বেশি কার্যকরী এই ডাবের জল। কারণ ডাবের জলে ফ্যাটের পরিমান প্রায় নেই বললেই চলে।

৫. হজম সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে-

আপনি যদি প্রতিদিন অন্তত ১ গ্লাস ডাবের জল পান করেন তার ফলে বুক জ্বলা, হজম সমস্যা, অ্যাসিডিটি, পেট ফাঁপার মত সমস্যা থেকে আপনি দূরে থাকবেন। খাবার হজমে সহায়তা করে হজম সংক্রান্ত সকল সমস্যা দূর করে থাকে এই ডাবের জল।

[[ভারতের এই গ্রামের ঘর বাড়িতে নেই কোনো ‘দরজা’ : কেন জেনে নিন]]

৬. ত্বকের সুরক্ষা করে এই ডাবের জল

ত্বকের নানা সমস্যা যেমন ভ্রন, মেছতা, ছোপ ছোপ দাগ, উজ্জ্বলতা হারানো, ত্বকের ইনফেকশন এইসব সমস্যা দূর করতে চাইলে নিয়মিত ডাবের জল পান করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। এছাড়াও আপনি জল পানের পাশাপাশি ত্বকে সরাসরি ডাবের জল ব্যবহার করে অনেক উপকার পেতে পারেন।

আপনারাও আমাদের লেখা পাঠাতে পারেন। লেখা পাঠাতে চাইলে আমাদের নীতিমালা পড়ে আমাদের সাথে  যোগাযোগ করবেন।

‘স্টুডেন্টস কেয়ার’ এর সকল লেখার স্বত্ব ব্লগ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সংরক্ষিত। লেখক বা কর্তৃপক্ষের অনুমতি ব্যাতিত কোন লেখা অন্য কোন অনলাইন বা অফলাইন মিডিয়াতে প্রকাশিত হলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে।


এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 1
    Share
error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!