ভারতের প্রথম উচ্চ গতি সম্পন্ন ট্রেন : বুলেট ট্রেন (Bullet Train)

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 6
    Shares

ভারতের পথ চলা শুরু হতে চলেছে, প্রথম উচ্চ গতি সম্পন্ন ট্রেন – বুলেট ট্রেন (Bullet Train) । কি পরিকল্পনা রয়েছে বুলেট ট্রেনের পেছনে? কার সহায়তা রয়েছে? কত খরচ এবং এর গতিবেগ কত এবং এর ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি? দেখুন নিজেই-

ভারতীয় রেলে একটি ঐতিহাসিক পরিবর্তন হতে চলেছে, আর মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই। ঐতিহ্য ময় ভারতীয় রেলের ইতিহাসে যুক্ত হতে চলেছে High Speed Rail (HSR)। যাকে আমরা সকলে বুলেট ট্রেন (Bullet Train) নামে চিনি। এবং এই প্রোজেক্টের জন্য অর্থ সহায়তা করছে ভারতের সহযোগী বন্ধু দেশ জাপান। জাপান প্রায় ৮৮,০০০ কোটি টাকা দিচ্ছে যেটি এই প্রোজেক্টের প্রায় ৮১%। জাপান এই অর্থ ভারতকে দিচ্ছে প্রায় ০.১% হারে সুদের বিনিময়ে, যেটি ৫০ বছর ধরে শোধ করতে হবে ভারতকে।

ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেনের যাত্রা পথ
ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেনের (Bullet Train) যাত্রা পথ। ছবি সূত্র- দ্য হিন্দু

এই প্রোজেক্টে মোট ৫০৯ কিমি রেল পথ তৈরী করা হবে। যেটি ভারতের মুম্বাই থেকে আহমদাবাদ (Mumbai Ahmedabad bullet train) শহরকে যুক্ত করবে। এই রেল পথের মধ্যে প্রায় ৭ কিমি পথ জলের নিচে দিয়ে প্রবাহিত হবে। ৫০৯ কিমি পথ যেতে সময় নেবে মাত্র ২.০৭ ঘন্টা। এই সময়ের সাথে ভারতের বর্তমানে সক্রিয় সবচেয়ে গতি বেগ সম্পন্ন ট্রেনের তুলনা করলে সেটি হবে প্রায় ৬-৭ ঘন্টা। বুলেট ট্রেনের (Bullet Train) সর্বাধিক গতি বেগ অনুমান করা হচ্ছে প্রায় ৩৫০ কিমি প্রতি ঘন্টায়।

এই প্রোজেক্টের ফলে সরাসরি কর্ম সংস্থান হবে প্রায় ২০,০০০ মানুষের, পরোক্ষ ভাবে ৪০০০ এবং গঠন মূলক কর্ম সংস্থান হবে প্রায় ২০,০০০ মানুষের।

আরও পড়ুনবিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দশটি দেশের সেনাবাহিনী

প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে, দশটি কোচ সহকারে ৭৫০ জন যাত্রী বহনে সক্ষম হবে। কিন্তু পর্যায় ক্রমিক ভাবে কোচের সংখ্যা বৃদ্ধি করে ১৬টে করা হবে এবং যাত্রী সংখ্যা প্রায় ১২৫০ জন বহনে সক্ষম হবে। ট্রেনটি executive এবং economy- দুটি ক্যাটাগরীতে বিভক্ত হবে।

সরকার পরিকল্পিত পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০৫০  সাল নাগাদ ১.৬  লাখ যাত্রী উচ্চ গতির ট্রেনের মাধ্যমে দৈনিক ভিত্তিতে ভ্রমণ করবে। তাছাড়া  বুলেট ট্রেন (Bullet Train) সার্ভিস প্রতিবছর ১.৫ কোটি ভ্রমণ কারীকে সেবা প্রদানের আশা করছে।

এক নজরে দেখে নিন অন্যান্য পরিকল্পিত বুলেট ট্রেনের যাত্রা পথ

এক নজরে দেখে নিন অন্যান্য পরিকল্পিত বুলেট ট্রেনের যাত্রা পথ

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ভারতীয় ট্রেন এশিয়ার মধ্যে অন্যতম প্রাচীন এবং বিশের চতুর্থ বৃহত্তর। এর পর ভবিষ্যত বলবে ভারতের জনগন ‘বুলেট ট্রেনে (Bullet Train) চড়ার সৌভাগ্য লাভ করবে কিনা!

আমাদের ফেসবুক পেজে গিয়ে প্রতিনিয়ত আপডেট থাকতে পারেন। ক্লিক করুন এখানে

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 6
    Shares
error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!