Gsuite

বাংলা শিক্ষা ই-পোর্টালের মাধ্যমে স্কুল স্তরে মার্কশিট এবার অনলাইনে মিলবে

এখান থেকে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  

বাংলা শিক্ষা ই-পোর্টাল (banglarshiksha.gov.in)

হাতে লেখা মার্কশিট এর দিন কি সমাপ্ত হতে চলেছে? হাতে লেখা মার্কশিট আর নয়? সূত্রের খবর চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকেই এবার ডিজিটাল মার্কশিট ব্যবস্থা কার্যকরী হতে চলেছে। চলতি শিক্ষাবর্ষে পঞ্চম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়ারা ই-পোর্টাল বা বাংলা শিক্ষা পোর্টালের মাধ্যমে মার্কশিট পাবেন।  এর জন্য পড়ুয়ারা দের নিজস্ব ‘ইউজার আইডি’ বানাতে হবে বা বানিয়ে থাকলে ঐ ইউজার আইডি  দিয়ে নিজের মার্কশিট সহজেই দেখতে পাবে বা ডাউললোড করে প্রিন্টকরতে পারবেন, দেখতে পাবেন অভিভাবকরাও। এছাড়াও শিক্ষক তার ক্লাসের সব পড়ার ফলাফল দেখতে পাবেন।

শুধু তাই নয় পড়ুয়াদের ট্রান্সফার সার্টিফিকেট ও শুধু ই-পোর্টালের মাধ্যমে দিতে হবে এমন নির্দেশিকা আসতে চলেছে চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে। স্কুল পড়ুয়াদের ব্যক্তিগত তথ্য থেকে শুরু করে স্কুলের সামগ্রিক ফল বাংলা শিক্ষা পোর্টাল আপলোড করার নির্দেশ দিয়েছিল স্কুল শিক্ষা দফতর। এবং সতর্ক করা হয়ে বলা হয়েছে যে, ওই পোর্টালে কোন পড়ুয়ার ছবি-সহ যাবতীয় তথ্য আপলোড না-করলে রাজ্য সরকার স্কল শিক্ষা সংক্রান্ত যে-সব সুযোগ ছাত্রছাত্রীদের দেয়, এগুলো বেশির ভাগই সে পাবে না।

আমরা জানি যে, “ই-শিক্ষা বা বাংলা শিক্ষা” পোর্টালের মাধ্যমে পড়ুয়ার নাম বা ঠিকানা, ভাষা, রক্তের গ্রুপ, আধার কার্ড নম্বর, শরীরের বিশেষ চিহ্ন এবং ছবি। এরই সঙ্গে থাকে অভিভাবকদের নাম, ঠিকানা এবং আনুষঙ্গিক সকল প্রকার তথ্যও। ফলে প্রয়োজনে এক ক্লিকেই যে কোনও পড়ুয়ার যাবতীয় তথ্য চলে আসে সরকারের হাতে। এতে ভুয়ো পড়ুয়ার সংখ্যায় রাশ টানা সম্ভব হয়। কারণ, মিড ডে মিল থেকে শুরু করে বহু সরকারী সুযোগ-সুবিধা পড়ুয়াদের দেওয়া হয়। রাজ্য সরকারের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প রয়েছে, যা শুধু স্কুল পড়ুয়াদের জন্যই। ভুয়ো তথ্যের কারণে পড়ুয়া পিছু বহু টাকা গরমিল হওয়া সম্ভব। শুধু তাই নয়, স্কুল সার্টিফিকেট—সংশ্লিষ্ট পড়ুয়ার নাগরিকত্বের দাবির ক্ষেত্রেও অন্যতম হাতিয়ার হতে পারে এই তথ্যগুলি। তাই নাগরিকত্বের আশায় প্রতিবেশী দেশ থেকে অনেকেই এদেশে এসে অন্যান্য নথির সঙ্গে স্কুলের শংসাপত্রও কায়দা করে জোগাড়ের চেষ্টা করে। কোনওভাবে এসব জোগাড় করে ফেলতে পারলেই কেল্লা ফতে। তখন তাঁর নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলা কঠিন। তাই, এইসব ফাঁক বন্ধ করার জন্য স্কুল শিক্ষা দফতর থেকে এই পোর্টাল খোলা হয়েছে।

Students Care

স্টুডেন্টস কেয়ারে সকলকে স্বাগতম! বাংলা ভাষায় জ্ঞান চর্চার সমস্ত খবরা-খবরের একটি অনলাইন পোর্টাল "স্টুডেন্ট কেয়ার"। পশ্চিমবঙ্গের সকল বিদ্যালয়, মহাবিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের এবং সমস্ত চাকুরী প্রার্থীদের জন্য, এছাড়াও সকল জ্ঞান পিপাসু জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তিবর্গদের সুবিধার্থে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!