if (:empty($schema)) { echo $schema:}নতুন ১০টি চাঁদের খোঁজ পাওয়া গেলো || বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি

নতুন ১০টি চাঁদের খোঁজ পাওয়া গেলো || বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    1
    Share

বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি

দানবগ্রহ বৃহস্পতির আরও ১০ উপগ্রহ আবিষ্কার হয়েছে, এমনটাই জানিয়েছেন মহাকাশবিদরা। এর ফলে বর্তমানে বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি । যা সৌরজগতের অন্যান্য গ্রহগুলির তুলনায় অনেকটাই বেশি।

বৃহস্পতি ও তার উপগ্রহ
বৃহস্পতি ও তার উপগ্রহ

আমরা জানি যে আকাশগঙ্গা ছায়াপথের মধ্যে সূর্যকে কেন্দ্র করে মোট ১৩টি গ্রহ ও অসংখ্য উপগ্রহ একটি পরিবারের মত অবস্থান করছে, একে সৌরপরিবার বলা হয়। এখন এই সৌরপরিবারের সম্পর্কে কিছু তথ্য আগে জেনে নেওয়া যাক।

■ গ্রহ কি-

মহাকাশের যেসব জ্যোতিষ্কর নিজস্ব আলো ও উত্তাপ নেই, যারা অন্য কোনো নক্ষত্রের আলোকে আলোকিত হয় এবং নির্দিষ্ট কক্ষপথে নক্ষত্রগুলির চারিদিকে পরিক্রমণ করে, তাদের আমরা গ্রহ হিসাবে চিনি। সৌরমন্ডলে মোট ১৩টি গ্রহ রয়েছে। এর মধ্যে কুলীন গ্রহ রয়েছে ৮টি এবং বামন গ্রহ রয়েছে ৫টি।
♣কুলীন গ্রহ- বুধ, শুক্র, পৃথিবী, মঙ্গল, বৃহস্পতি, শনি,ইউরেনাস এবং নেপচুন
♣ বামন গ্রহ- প্লুটো, সেরেস, এরিস, হাউমেয়া, মাকিমাকি

সৌরপরিবার
সৌরপরিবার

৮ টি কুলীন গ্রহের মধ্যে ৪ টি কুলীন গ্রহ বৃহস্পতি, শনি, ইউরেনাস ও নেপচুন হল আকারে খুব বড়ো। তাই এদের বলা হয় রাক্ষুসে গ্রহ। সৌরজগতের গ্রহ গুলির মধ্যে বৃহস্পতির আয়তন সবচেয়ে বড়ো। প্রায় ১২টি পৃথিবীকে নিয়ে একটি বৃহস্পতি গঠিত হতে পারে। National Aeronautic & Space Agency (NASA) প্রদত্ত তথ্য অনুসারে বৃহস্পতির ব্যাস ও পরিধি যথাক্রমে ১,৪৩,০০০ কিমি ও ৪,৪৯,৪২৯ কিমি। নিচে বৃহস্পতি সম্পর্কে কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

■ এক নজরে বৃহস্পতি গ্রহের কিছু তথ্য-

★ বাংলা নাম– বৃহস্পতি
★ ইংরেজি নাম- জুপিটার বা Jupiter।
★ আবিষ্কারক – গ্যালিলিয়ো।
★ ক্ষেত্রমান– প্রায় ৬৪২২ কোটি ৮০ লক্ষ বর্গকিমি।
★ সূর্য থেকে দূরত্ব – ৭৭.৮ কোটি কিমি।
★ পৃথিবীর তুলয়ার বড়ো– ১১.২২ গুণ।

বৃহস্পতি
বৃহস্পতি

★ নিরক্ষীয় ব্যাস- ১,৪৩,০০০ কিমি।
★ পরিধি– ৪,৪৯,৪২৯ কিমি।
★ ভর– ৩১৮.০০০(পৃথিবীর সাপেক্ষে).
★ ঘনত্ব – ১.৩৪ গ্রাম/ঘন সেমি।
★ উষ্ণতা – -১৫০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড।
★ আবর্তনের সময়- ৯ ঘন্টা ৫০ মিনিট
★ পরিক্রমণ কাল- ১২ বছর
★ পরিক্রমণ বেগ- ১৩.১ কিমি/সেকেন্ড।
★উপগ্রহ সংখ্যা- বৃহস্পতির উপগ্রহ বর্তমানে ৭৯টি।
★ সবচেয়ে বৃহৎ উপগ্রহ– বৃহস্পতির সবচেয়ে বৃহৎ উপগ্রহ হল গ্যানিমেড।
★ বিশেষত্ব – ১. রোমান দেবতাদের রাজা ‘জুপিটার’ এর নামে নামকরণ করা হয়েছে।
২. সবচেয়ে বড়ো গ্রহ বলে একে গহরাজ বলা হয়।
৩. মাধ্যাকর্ষণ শক্তি সবচেয়ে বেশি।

■ আবিষ্কার হল বৃহস্পতির নতুন ১০টি উপগ্রহ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন প্রদেশের কার্নেজ ইন্সটিটিউশনের গবেষকরা এক সাংবাদিক বৈঠকে নতুন উপগ্রহগুলির খতিয়ান দিয়েছেন। তাঁদের দাবি, বৃহস্পতির ১২টি নতুন উপগ্রহ আবিষ্কার করেছেন তাঁরা। এর মধ্যে ১০টি উপগ্রহের বিস্তৃত বিবরণ দিয়েছে গবেষকরা। গবেষকরা আরও জানিয়েছেন, সৌরমণ্ডল সৃষ্টির সময় বৃহস্পতির আকর্ষণে তার চারিদিকে ঘুরতে শুরু করে মহাজাগতিক এই টুকরোগুলি।

◆ বৃহস্পতিরর উপগ্রহ পর্যবেক্ষণ-

এই দানগ্রহণ বৃহস্পতিকে নিয়ে গবেষণা হয়ে আসছে কয়েক শত বছর আগে থেকেই। বৃহস্পতির উপগ্রহ ও বলয় আলাদা গবেষণার বিষয়। ১৬১০ সালের ৮ জানুয়ারি প্রথমবার ‘আলাশে টেলিস্কোপ‘ তাক করে গ্যালিলিও এই গবেষণা শুরু করেছিলেন তা চলছে এখনো। একের পর এক অনু সন্ধানী যান ও হাবল টেলিস্কোপের সৌজন্যে একে একে খোঁজ মিলেছে বৃহস্পতির ৬৯টি উপগ্রহের এবার খোঁজ মিলল আরও ১০টি উপগ্রহের। এই আবিষ্কারের জন্য চিলি এবং যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই এবং অ্যারিজোনা রাজ্যের টেলিস্কোপ ব্যাবহার করা হয়েছে।

বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি
গ্যালিলিও মহাকাশ পর্যবেক্ষণ করতে ব্যস্ত রয়েছেন!

◆ সৌরজগতের সবচেয়ে বড়ো উপগ্রহের সাথে তুলনা

মহাকাশের সবচেয়ে বড় গ্রহ হল বৃহস্পতি

বৃহস্পতির উপগ্রহ গ্যানিমিড সৌরমণ্ডলের সব থেকে বড় উপগ্রহ। ৫,২৬৮ কিলোমিটার ব্যাসের গ্যানিমিড উপগ্রহ বুধ গ্রহের থেকেও আয়তনে বড়। তবে নতুন যে উপগ্রহগুলির খোঁজ মিলেছে তারা সেই তুলনায় আকারে অনেক ছোটো, আকারে প্রায় নুড়ি মাত্র। গবেষকরা জানাচ্ছেন নতুন ১০টি উপগ্রহের ব্যাস ১ থেকে ৪ কিলোমিটারের মধ্যে। এগুলোর সর্বনিম্নটির ব্যাস ৬০০ মিটার আর সর্বোচ্চটির ব্যাস প্রায় ৪ কিমি।

◆ ভ্যাকিউম ক্লিনারের মত আচরণ

নতুন ১০টি উপগ্রহের অবস্থান দেখানো হয়েছে
নতুন ১০টি উপগ্রহের অবস্থান দেখানো হয়েছে

বৃহস্পতিরর আয়তন এতই যে এটি সৌরমন্ডলে একটি ভ্যাকিউম ক্লিনারের মত আচরণ করে।
গবেষকদলের প্রধান স্কট শেপার্ড বলেন, “বৃহস্পতি হল সৌরমণ্ডলের ভ্যাকিউম ক্লিনারের মতো। কারণ এর আকার অনেক বেশি। যাবতীয় ছোট কণাকে টেনে নেয় এই গ্যাসীয় দানব। বৃহস্পতির টানেই নিমজ্জিত হওয়া বা আছরে পরার বদলে তার চারদিকে ঘুরতে শুরু করে কণাগুলি। তাই আমরা ধারণা করছি এগুলো পাথর এবং অর্ধ-বরফ জাতীয় কোন কিছুর মিশ্রণে তৈরি”।

◆ উপগ্রহ কণারগুলির প্রকৃতি

ভূতাত্ত্বিক চরিত্রগত দিক থেকে কণাগুলির অবস্থান উপগ্রহ ও ধূমকেতুর মাধামাঝি। আধা পাথুরে ও আধা বরফ এই জ্যোতিষ্কগুলি বৃহস্পতির চারিদিকে ঘুরপাক খাচ্ছে কয়েক লক্ষ কোটি বছর ধরেই।

◆ ১০ উপগ্রহের একটি হল ‘অডবল’

চিত্রে অডবলের একটি রূপরেখা দেখানো হয়েছে

নতুন আবিষ্কার হওয়া ১০টি উপগ্রহের মধ্যে একটি হল ‘অডবল’। কি এই অডবল?

সধারণত গ্রহের নিজের অক্ষের সাপেক্ষে ঘুর্ণনের দিকেই ঘোরে প্রধান উপগ্রহগুলি। আবার দূরের উপগ্রহগুলি ঘোরে গ্রহের অক্ষের ঘূর্ণনের বিপরীত দিকে। এক্ষেত্রে নতুন আবিষ্কৃত হওয়া একটি উপগ্রহ দূরবর্তী উপগ্রহগুচ্ছের অংশ হলেও সে ঘুরছে মূল বা প্রধান উপগ্রহগুলির দিকেই (তাকে বিপরীত দিকে ঘরতে হত)। অর্থাৎ এক্ষেত্রে বৃহস্পতি যেদিকে নিজ অক্ষে প্রদক্ষিণ করে, এই উপগ্রহটিও সেদিকেই প্রদক্ষিন করে। তাই এই নাম দেওয়া হয়েছে ‘অডবল’।

শেপার্ডের মতে- “এই উপগ্রহটি ভিন্ন দিক থেকে প্রদক্ষিণ করছে। তাই আমাদের ধারণা এটি অন্য কারও সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হবে। খুব সম্ভবত আগেও কারও না কারও সাথে এর সংঘর্ষ হয়েছে”।

অবশেষে মনে করিয়ে দেই- সৌরজগতে বৃহস্পতিরই সবচেয়ে বেশি চাঁদ বা উপগ্রহ রয়েছে। এর পর শনির ৬১টি, ইউরেনাসের ২৫টি, নেপচুনের ১৪টি পৃথিবীর একটি চাঁদ, মঙ্গলের দুটি। বুধ ও শুক্রের আপাতত কোনো চাঁদ বা উপগ্রহ নেই।

©কপি রাইট স্টুডেন্টস কেয়ার- অনুমতি ব্যতীত কপি করা নিষিদ্ধ। লিঙ্ক শেয়ার করতে পারেন।

ট্যাগ- সৌরজগতের নতুন দশটি উপগ্রহ, সৌরজগতের নতুন দশটি চাঁদ, বৃহস্পতির নতুন ১০ টি উপগ্রহ , বৃহস্পতির কয়টি উপগ্রহ , বৃহস্পতির উপগ্রহ সংখ্যা এখন ৭৯ টি ,

Students Care

স্টুডেন্টস কেয়ারে সকলকে স্বাগতম! বাংলা ভাষায় জ্ঞান চর্চার সমস্ত খবরা-খবরের একটি অনলাইন পোর্টাল "স্টুডেন্ট কেয়ার"। পশ্চিমবঙ্গের সকল বিদ্যালয়, মহাবিদ্যালয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের এবং সমস্ত চাকুরী প্রার্থীদের জন্য, এছাড়াও সকল জ্ঞান পিপাসু জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তিবর্গদের সুবিধার্থে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। 

error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!