জি. এস. টি যুক্ত রসিদ আসল না নকল কিভাবে বুঝবেন?

এখান থেকে শেয়ার করুন
  • 177
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
    177
    Shares

কোনো দোকান বা রেস্ট্রুরেন্টের জি. এস. টি (GST) যুক্ত রসিদ আসল না নকল কিভাবে বুঝবেন?

আমরা সকলেই অবগত যে ভারতের নতুন অর্থব্যবস্থার সূচনা হয়েছে জি. এস. টি এর মাধ্যমে। বর্তমানে বিভিন্ন পন্যসামগ্রী, দোকান অথবা রেস্ট্রুরেন্টের রসিদে কেন্দ্র সরকারের ৫০ শতাংশ এবং রাজ্য সরকারের ৫০ শতাংশ জি. এস. টি কর বসানো হয়ে থাকে। কিন্তু অনেক সময় এই কর ফাঁকি দেওয়ার জন্য অনেকে অনেক ধরনের অসৎ উপায় অবলম্বন করে থাকে। আজ আমরা কোনো রেস্ট্রুরেন্ট বা দোকানের জি. এস. টি যুক্ত রসিদ আসল না নকল এটি চেনার জন্য কয়েকটি উপায় আপনাদের জানিয়ে সতর্ক করবো।

জি. এস. টি যুক্ত রসিদ আসল না নকল চেনার উপায়

১. যখন আপনাদের কোনো দোকান বা রেস্ট্রুরেন্টে রসিদ দিয়ে টাকা মেটানোর কথা বলা হবে তখন আপনি ওই রসিদটি ভালো করে লক্ষ করলে দেখতে পাবেন যে ওখানে ১৫টি ডিজিটের একটি GST নম্বর দেওয়া রয়েছে। যদি কোনো কারনে ওই নম্বর না থেকে তাহলে অবশ্যই ওই রসিদ টি নকল।

২. এখন অনেকে ভাববেন, কোনো দক্ষ অসাধু ব্যক্তি একটি নকল সাজানো জি এস টি নম্বর দিয়ে বলেন যে এটি তার জি এস টি নম্বর। সেক্ষেত্রে আপনি কই করে চিনবেন এটি আসল না নকল? চিনটা করবেন না, এর ও সমাধান রয়েছে। শুধুমাত্র আপনার ফোনে নেট কানেকশন থাকতে হবে, এবং আপনাকে নিম্নলিখিত ওয়েবসাইটে যেতে হবে- https://services.gst.gov.in/services/searchtp এরপর ওই ওয়েবসাইটে প্রদত্ত জি এস টি নম্বরটি দিয়ে সার্চ করলেই আপনাকে বলেদেবে যে জি এস টি নম্বরটি আসল নাকি নকল।

৩. আরো একটি মজার বিষয় জেনে রাখুন। জি এস টি নম্বরের মালিক কোনো ব্যক্তি নাকি কোনো কোম্পানি এটি কিভাবে চিনতে হয় দেখুন। মনে রাখবেন প্রত্যেক জি এস টি নম্বরের ৬ নম্বর ডিজিটে যদি “P” লেখা থাকে তাহলে সেটি ব্যক্তিগত অর্থাৎ ‘Personal’ GST নম্বর, এবং যদি “C” লেখা থাকে তাহলে ধরে নিতে হবে ওটি কোনো কোম্পানির (Company) এর জি এস টি নম্বর।

একটি উদাহরণ দিলাম। ধরুন একটি জি এস টি নম্বর হল 06AAEPJ2723E2ZQ এই নম্বরের ৬ নম্বর ডিজিট টি লক্ষ করুন (06AAE”P”J2723E2ZQ) ‘P’ রয়েছে। তাহলে এটি ব্যক্তিগত জি এস টি নম্বর।

৪. মনে রাখবেন কোনো Non AC যুক্ত রেস্ট্রুরেন্ট এবং অ্যালকোহল বিহীন খাবার খেলে সেক্ষেত্রে ১২ শতাংশ জি এস টি নেওয়া হয় কিন্তু AC রেস্ট্রুরেন্ট এবং অ্যালকোহল জাতীয় খারার খেলে তখন ১৮ শতাংশ জি এস টি কর নেওয়া হয়। এছাড়া Takeaway Counter  থেকে খাওয়ার  বাড়িতে নিয়ে গেলে সেক্ষেত্রে ১৮ শতাংশ জি এস টি নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, অক্টবর মাস পর্যন্ত ১৮ শতাংশ রয়েছে কিন্তু পরিকল্পনা চলছে এটিকে ১২ শতাংশে নিয়ে আসার জন্য।

৫. সার্ভিস চার্জ- এটি কোনো কর নয়। এটি দেওয়া বা না দেওয়া সম্পূর্ণ আপনাদের ওপর নির্ভরশীল। কোনো রেস্ট্রুরেন্ট আপনাকে চাপ দিয়ে এই চার্জ নিতে পারবেনা। যদি দিতে বাধ্য করে তাহলে আপনি কনসিউমার কোর্টে অভিযোগ জানাতে পারবেন।

এতক্ষন আমরা জানলাম কিভাবে অসাধু ব্যক্তিরা আমাদের ঠকাতে পারে। এবার জানবো এই সব অসাধু ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে কি কি ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। প্রধানত ৫টি আলাদা আলাদা পদ্ধতি রয়েছে, যেগুলো আপনাদের জানালাম।

১. প্রথমত আপনি এই নম্বরে (১৮০০১১৪০০০) ফোন করে আপনার মতামত জানাতে পারেন। এছাড়াও আপনি SMS পাঠাতে পারেন এই নম্বরে- ৮১৩০০০৯৮০৯।

২. দ্বিতীয়ত, আপনি এই ওয়েবসাইটে গিয়ে অভিযোগ জানাতে পারেন। https://consumerhelpline.gov.in

৩. তৃতীয়ত, আপনি ই-মেল করতে পারেন এই ঠিকানায়- [email protected] অথবা [email protected]

৪. চতুর্থ,  আপনি GST Portal-এ অভিযোগ জানান এই ই-মেলের মাধ্যমে- [email protected]  অথবা GST helpline এর নম্বরে ফোন করতে পারেন। নম্বর হল- ০১২০-৪৮৮৮৯৯৯, ০১১-২৩৩৭০১১৫

৫. এছাড়াও, আপনি টুইটারে যোগাযোগ করার চেষ্টা করুন।

♦ টুইটার হল-

@jagograhakjago,

@consaff,

@ASKGST_GOI

@FINMININDIA

অবশেষে বলে রাখলাম, এই ধরণের অপরাধের ফলে মোট TAX Amount এর ১০০% টাকার জরিমানা হতে পারে এবং ৫ বছরের জেল ও হতে পারে।

লেখাটি ভালো লাগলে জন স্বার্থে প্রচার করুন!

কমেন্ট বক্সে মতামত জানান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!