সাইক্লোনের নাম করণের নতুন পদ্ধতি , যুক্ত হল আরও ৫টি দেশ, মোট ১৩ দেশ

এখান থেকে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  

সাইক্লোনের নাম করণের নতুন পদ্ধতি

ক্রান্তীয় ও নাতিশীতোষ্ণ মন্ডলে উষ্ণতা বৃদ্ধি বা অন্যান্য কারনে কোনো স্বল্প পরিসর স্থানে হঠাৎ বায়ুচাপ কমে গেলে সেই অঞ্চলের বায়ু উর্দ্ধমূখী হয় এবং চাপের সমতা বজায় রাখার জন্য পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের উচ্চচাপ অঞ্চল থেকে বায়ু চক্রাকারে নিম্নচাপ কেন্দ্রের দিকে পর্যায়ক্রমে প্রবেশ করে এবং সেটি উষ্ণ ও হাল্কা হয়ে কুন্ডলী পাকিয়ে উর্দ্ধমূখী হয়. এরূপ দ্রুতগতি সম্পন্ন উষ্ণ ঘূর্ণি বায়ু প্রবাহকে ঘূর্ণবাত বা ঘূর্ণিঝড় বলে.

বাংলা ঘূর্ণবাত শব্দের ইংরেজি নাম হল “সাইক্লোন” (Cyclone). ইংরেজি সাইক্লোন শব্দটির বুৎপত্তি গ্রিক শব্দ “Kukloma” বা “Kyklos” (সাপের কুন্ডলী থেকে. ক্যাপ্টেন হেনরি পিডিংটন 1848 সালে সাইক্লোন শব্দটি প্রথম ব্যাবহার করেন।

♠ ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ হয় কিভাবে –

সাইক্লোনের নাম করণের চিন্তা ভাবনা শুরু হয় ১৯৯৯ সালে ওড়িশার সুপার সাইক্লোনের পর থেকে। ১৯৯৯ সালে ওডিশা তছনছ করে দিয়েছিল সুপার সাইক্লোন। এর কোনো পোশাকি নাম ছিল না, ২০ বছর আগের সেই ঘূর্ণিঝড়কে লোকে চেনে পারাদ্বীপ সাইক্লোন নামে। কারণ, ওডিশা বন্দর শহর পারাদ্বীপেই আছড়ে পড়েছিল শক্তিশালী এই ধূর্ণিঝড়।

এর পর নামকরণের প্রক্রিয়াটি শুরু হয়েছে 2000 সালে ম্যাসকটে 27তম সম্মেলনে. ওই সম্মেলনে WMO (World Meteorological Organization) ও RSMC (Regional Specialised Meteorological Centre) দ্বারা অনুমদনের মাধ্যমে. ভারত মহাসাগর, আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় হলে তার নাম ঠিক করে দেওয়ার দায়ীত্ব দেওয়া হয়েছে ভারতের দিল্লিস্থিত মৌসম ভবনকে.

নামকরণের এই চল প্রশান্ত মহাসাগর, আটলান্টিকের ক্ষেত্রে অনেক আগে এসেছে। ১৯৫৩ সালে শুরু হয় হারিকেনের নাম দেওয়া। প্রথম দিকে মেয়েদের নাম বেশি আসত, পরে আবার ছেলেদের নাম প্রাধান্য পায়। এখানেও যে যে দেশে প্রভাব পড়ে, তারা মিলেই ঠিক করে নাম।

♠ সাইক্লোন বা ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণের পদ্ধতি –

প্রথমে বলে রাখি আরব সাগর, বঙ্গোপসাগর ও ভারত মহাসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে পারে আটটি দেশে. এই আটটি দেশ হল- ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, মায়ানমার, ওমান ও থাইল্যান্ড. এই আটটি দেশের কাছ থেকে আটটি করে নাম সংগ্রহ করে মোট 64টি নামের তালিকা মৌসম ভবনে রাখা রয়েছে. এবার প্রথমে এই আটটি দেশের ইংরেজি নামের বর্ণানুক্রমে (Alphabetically সাজিয়ে সংশ্লিষ্ট দেশের দেওয়া নাম গুলিকে নির্দিষ্টক্রমে সাজিয়ে দেওয়া হয়েছে. নিম্নের তালিকাটি লক্ষ করুন.

সাইক্লোনের নাম করণের নতুন পদ্ধতি

[সাইক্লোন বা ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ হয় কিভাবে ]

এর পর যখন কোনো ঘূর্ণিঝড় হয় তখন একে একে পর্যায়ক্রমিক ভাবে নাম গুলিকে চিহ্নীত করে ঘূর্ণিঝড়গুলির নাম রাখা হয়. যেমন ২০১৯ সালে নভেম্বরে ঘটে যাওয়া ঘূর্ণিঝড়ের নাম “বুলবুল” যেটি পাকিস্তানের দেওয়া।

একটি মজার তথ্য জেনে রাখুন, ২০০০ সাল থেকে ঠিক করা ৬৪টি ঘূর্ণিঝড়ের নামের তালিকা থেকে প্রথম নামটি ব্যবহার হয়েছিলো ২০০৪ সালে। ‘নাম’ পাওয়া প্রথম ঘূর্ণিঝড় ‘অনিল’। আছড়ে পড়েছিল গুজরাটে। ১৪ বছর পর সেই তালিকা এ বার শেষের পথে।  ‘বুলবুল’ ঘূর্ণিঝড়ের পর আর মাত্র দুটি নাম পড়ে রয়েছে। তাহলে এখন উপায় কী?

♠ সাইক্লোনের নতুন নাম করণের পদ্ধতি-

আমরা এতক্ষন জেনেছি জে সাইক্লোনের নামের তালিকাটি তৈরি হয়েছিলো ৮টি দেশ কে নিয়ে, কিন্তু তা এখন বদলাতে চলেছে। এখন আরও পাঁচ দেশ যুক্ত হয়েছে।

♠ সাইক্লোন বা ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণের নতুন দেশের নাম-

নয়াদিল্লি মৌসম ভবনের ঘূর্ণিঝড় সতর্কীকরণ বিভাগের প্রধান মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র বলেন, ‘বিশ্ব আবহাওয়ার সংস্থার এই প্যানেলে এতদিন আট দেশ ছিল। এখন আরও পাঁচ দেশ যুক্ত হয়েছে। ইরান, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, ইয়েমেন, কাতার। ১৩ দেশ মিলে বৈঠকে বসা হবে। প্রতিটি দেশ নিজেদের বিবেচনা করা নাম জমা করবে। তার পর একটা তালিকা বানিয়ে সংশ্লিষ্ট সমস্ত দেশকে পাঠানো হবে। সব শেষে চূড়ান্ত তালিকা। সবটা হতে হতে দু’বছর লেগে যাবে।’

আপনার জন্য আরও রয়েছে পড়ুন

স্টুডেন্টস কেয়ারে লেখা পাঠাতে হলে এখানে ক্লিক করুণ

স্টুডেন্টস কেয়ার মূলত ইউজার জেনারেটেড বা স্টুডেন্টস কেয়ারের পাঠক-লেখকদের তৈরি করা কন্টেন্ট প্রকাশ করছে। আপনি চাইলে ৩০০ বা তার অধীক শব্দের মাঝে যে কোনো পছন্দমত লেখা, ছোট গল্প, সাধারণ জ্ঞান, জানা অজানা তথ্য, কারেন্ট আপডেট, ছাত্র-ছাত্রীদের উপযোগী লেখা, ফিচার স্টুডেন্টস কেয়ারে কন্ট্রিবিউট করতে পারেন। ১-৩ দিনের মাঝে লেখা মানসম্মত হলে তা প্রকাশিত হবে। কন্ট্রিবিউশন কন্টেন্টের জন্য কোনো সম্মানীর ব্যবস্থা নেই। তবে স্টুডেন্টস কেয়ার টিমের কন্টেন্ট রাইটার টিমে যুক্ত হতে এটা আপনাকে সহযোগিতা করবে। লেখা প্রকাশের আগে আমাদের নীতিমালা ভালো করে পড়ে নিন। যে কোনো প্রয়োজনে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

Tag- ঘূর্ণিঝড়ের নামের তালিকা 2019, ঘূর্ণিঝড়ের নাম, ঘূর্ণিঝড়ের নাম তৈরির দায়ীত্বে রয়েছে কোন্‌ কোন্‌ দেশ, ঘূর্ণিঝড়ের নামকরণ করা হয় কিভাবে, 

কমেন্ট বক্সে মতামত জানান

error: স্টুডেন্টস কেয়ার কতৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত !!